TMSS

ঢাকায় আন্তর্জাতিক কর্মশালায় প্রাইভেট সেক্টরে পরিবেশ ভাবনা বিষয়ে বক্তব্য রাখেন অধ্যাপিকা ড. হোসনে আরা বেগম

সাউথ এশিয়া নাইট্রোজেন ফ্রেমওয়ার্ক পলিসি বিষয়ক ঢাকায় অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক কর্মশালায় টিএমএসএস এর নির্বাহী পরিচালক অধ্যাপিকা ড. হোসনে-আরা বেগম দেশে প্রাইভেট সেক্টরের পরিবেশ ভাবনা সংক্রান্ত বক্তব্য রাখেন। সাউথ এশিয়া কো-অপারেটিভ ইনভায়রনমেন্ট প্রোগ্রাম (এসএসিইপি) আয়োজিত ঢাকা প্যান-প্যাসিফিক সোনারগাঁও হোটেলে বুধবার ২২/০৬/২০২২ইং এই কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়।

ড. হোসনে আরা বেগম কর্মশালায় তথ্য তুলে ধরে জনবহুল বাংলাদেশের নদী-নালা, বিল-গাড়ী, হাওর-বাঁওড়, দিঘী-পুকুরে পর্যাপ্ত জলেশ্বরী (কচুরীপানা) এবং উপাদেয় এ্যাকোয়াটিক বায়োমাসকে সারে রূপান্তর করে ইউরিয়া তথা যেকোন কেমিক্যাল ফার্টিলাইজারের উপর নির্ভরশীলতা হ্রাসকল্পে সরকার কর্তৃক সক্রিয় কার্যক্রম গ্রহণ করার প্রস্তাব রাখেন। দিনের আলোর ব্যবহার বৃদ্ধিতে হাট, বাজার, বিপণন কার্যক্রমের সময়সীমা রাত্রি ৮ টা নির্ধারণ করতঃ বিদ্যুৎ উৎপাদনের কাঁচামাল হিসেবে ফসিল ফুয়েল ব্যবহার এবং কার্বন ও নাইট্রোজেন বৃদ্ধি না করা। তেমনি অফিস সময়সীমা ৯ টা থেকে ৫ টার পরিবর্তে সকাল ৮ টা থেকে ৪ টা পর্যন্ত নির্ধারণ করার প্রস্তাব রাখেন।
এছাড়াও তিনি, অফিসার ভিত্তিক ভিকেল বন্ধ করে শ্রেণি নির্বিশেষে যৌথ পরিবহন ব্যবস্থা চালু করে জ্বালানী সাশ্রয় এবং যানজট হ্রাসকরণে সক্রিয় ব্যবস্থা গ্রহণের প্রস্তাব দেন। উপযুক্ত প্র্যাকটিশনার, রিসার্চার, একাডেমিসিয়ান গবেষকগণের সমন্বয়ে পরিবেশ পলিসি তথা নাইট্রোজেন পলিসি প্রণয়নের সুপারিশ করেন। তিনি কৃষক এবং অনুশীলকগণের (প্র্যাকটিশনার) প্রাকৃতিক শিক্ষাকে আমলে নেওয়ার জন্য জোর তাগিদ দেন। পরিবেশ প্রতিবেশ পরিচ্ছন্ন করার জন্য অ-আন্তরিক আমলা অফিসারগণের মস্তিষ্ক এবং হৃদয়ের পরিবেশ মানব বান্ধব হওয়ার আকাক্ক্ষা ব্যক্ত করেন।

Leave A Comment